আদমদীঘিতে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা, মোটরসাইকেল ছিনতাই


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ১৭ মার্চ, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক::বগুড়ার আদমদীঘিতে রুবেল হোসেন (৩২) নামের এক মোটরসাইকেলের পার্টস ব্যবসায়ীকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে ও কুপিয়ে হত্যা করে তার মোটরসাইকেল ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে আদমদীঘি-তিলকপুর সড়কের কোমরভোগ কমিউনিটি ক্লিনিকের অদূরে একটি ধান ক্ষেতে এ হত্যার ঘটনা ঘটে। বুধবার সকালে খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনায় আদমদীঘি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহত রুবেল হোসেন উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়নের শালগ্রামের সামছুল ইসলামের ছেলে।
জানা যায়, রুবেল হোসেন পার্শ্ববর্তী জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার তিলকপুর বাজারে বসবাস ও মোটরসাইকেলের পার্টস ও ইন্টানেটের আউট সোর্সিং-এর ব্যবসা করেন। মঙ্গলবার বিকেলে ব্যবসা সংক্রান্ত কাজে রুবেল হোসেন তিলকপুর থেকে আদমদীঘি আসেন। কাজ শেষে রাতে তার ব্যবহৃত পালসার মোটরসাইকেল যোগে তিলকপুর বাজারে ফিরছিলেন। তিনি রাতে আদমদীঘি-তিলকপুর সড়কের কোমরভোগ গ্রামের কমিউনিটি ক্লিনিকের সামনে পৌঁছলে দুর্বৃত্তরা সড়কে দড়ি দিয়ে ব্যারিকেট দিয়ে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। এরপর ব্যবসায়ী রুবেল হোসেনকে উপর্যুপুরি এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত এবং গলা ও পায়ে দড়ি দিয়ে বেঁধে হত্যা করে পাশের ধান ক্ষেতে ফেলে রেখে তার মোটরসাইকেল এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সকালে আদমদীঘি ও দুপচাঁচিয়া সার্কেলের সিনিয়র পুলিশ সুপার কেএইচএম এরশাদ ও ওসি জালাল উদ্দীন ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন। আদমদীঘি ও দুপচাঁচিয়া সার্কেলের সিনিয়র পুলিশ সুপার কে এইচ এম এরশাদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ হত্যা কান্ডের রহস্য উৎঘাটন ও হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। উল্লেখ্য যে, গত ৬ মাসে এ হত্যাকান্ড সহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মোট ৫টি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।