উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর আলোচনা সভা।


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ২৩ মার্চ, ২০২১

অলোক মজুমদার , চিতলমারী, বাগেরহাট:::১৮থেকে২৪মার্চ বাগেরহাট জেলার চিতলমারী উপজেলার ৭ ইউনিয়নের ৫টিতে ব্ঙ্গবন্ধুর১০১তম জন্মবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।তার ধারাবাহিকতায় ২৩মার্চ চিতলমারী উপজেলার সন্তোষপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় এ আলোচনা সভা। সভা পরিচালনা করেন সমবায় অফিসার মোল্লা সাইফুল ইসলাম।
সভায় সভাপতিত্ব করেন অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক বাবু প্রফুল্ল কুমার বালা।সভার শুরুতে বক্তারা বঙ্গবন্ধুর জীবনের কথা আলোচনা করেন।
বক্তারা বলেন, ৭ই মার্চের ভাষন না দিলে আমরা স্বাধীনতা পেতাম না।পেতাম না মায়ের মুখের ভাষা বাংলা।বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন এবং তার জন্য দোয়া করতে বলেন।
আলোচনায় বঙ্গবন্ধুর ১৭ই মার্চ জন্মদিন পালনের কথা বলেন।বঙ্গবন্ধু পরের জন্য জীবন বিলিয়ে দেন।জেল জুলুম,আত্যাচার,নির্যাতন করেও বঙ্গবন্ধুকে দাবিয়ে রাখা যাইনি।দেশকে সোনার বাংলা করার জন্য নিজের জীবন দিয়ে দেন।
দেশের উন্নয়ন হলে তার সুফল আমরা ভোগ করবো।তার লালিত স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য উপস্থিত সকলকে অনুরোধ করেন।
বিআরডিবি অফিসার শহীদুল ইসলাম বলেন আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি বঙ্গবন্ধুর জন্য।যার জন্ম না হলে আমাদের পাকিস্তানীদের গোলামি করতে হতো।দেশ উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে।আসুন দেশের অগ্রযাত্রায় আমরা সকলে সামিল হই।
সমবায় অফিসার বলেন বঙ্গবন্ধু একমাত্র ব্যক্তি যিনি দেশকে ভালোবেসে,দেশের মানুষকে ভালোবেসে নিজের শুখ শান্তি সব বিসর্জন দেন।তার জন্মদিনে এবং স্বাধীনতার সবর্ণজয়ন্তীতে আমরা তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। আমাদের পরের উপর নির্ভর করতে হবে না। কারো রক্তচক্ষুর ভয় করতে হবে না আমাদের প্রধানমন্ত্রীর জন্য।উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানান বঙ্গবন্ধুর জীবনের উপর আলোকপাত ধৈয্য ধরে শোনার জন্য।
সভায় উপস্থিত ছিলেন সহকারী পরিদর্শক সমবায় আছাদুলজ্জামান,বিআরডিবির মাঠ সংগঠক রুবেল আহম্মেদ,একটি বাড়ি একটি খামার ও পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক এর মাঠ সংগঠক অনুপ বাড়ৈ,প্রদীপ মন্ডল,সন্তোষপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক অভিজিৎ কুমার মন্ডল,প্রতিবেদক ও শিক্ষক অলোক কুমার মজুমদার, সন্তোষপুর গ্রাম পুলিশ পার্থ মজুমদার,প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী বিপ্রদাশ মলঙ্গী, বিআর ডিবির গ্রাম ম্যানেজার হরিদাশ বিশ্বাস,বিভিন্ন ইউনিটের সভাপতি, সম্পাদক সহ কর্মীরা।