খাগড়াছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজে যৌন হয়রানির অভিযুক্ত শিক্ষক জেল হাজতে।


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৪ মার্চ, ২০২১

জহিরুল ইসলাম (খাগড়াছড়ি জেলা প্রতিনিধি)
খাগড়াছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের বিল্ডিং ট্রেড এর সহকারী শিক্ষক সোহেল রানাকে নিজ প্রতিষ্ঠানের দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করে, বৃহস্পতিবার (৪মার্চ) খাগড়াছড়ি চিফ-জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির করা হয়, আদালত জামিন না মঞ্জুর করে হাজতে পাঠিয়েছেন। গত মঙ্গল বার (২মার্চ) দুপুরে ঐ শিক্ষার্থীর বাবা বাদি হয়ে, খাগড়াছড়ি সদর থানায় মামলা করেন।
খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মমিনুর রশিদ বলেন,
গত বুধবার (৩ মার্চ) বিকালে ঢাকা শেরেবাংলা নগরে পলাতক থাকার কথা প্রযুক্তির মাধ্যমে নিশ্চিত হয়ে, খাগড়াছড়ি সদর থানা অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করেছেন। তাকে, বৃহস্পতিবার (৪মার্চ) খাগড়াছড়ি চিফ-জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের আদালতে হাজির করা হয়, আদালত জামিন না মঞ্জুর করে হাজতে পাঠিয়েছেন। উলেখ্য, ২৮ ফ্রেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠানের অদক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগে বলা হয়, দশম শ্রেণীর ছাত্রী কলি চাকমা (ছদ্মনাম)কে ২৫ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টায় শিক্ষক সোহেল রানা খাগড়াছড়ি সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের(টিএসসি) নিজ অফিস কক্ষে ডেকে নিয়ে যৌন নিপীড়ন ও ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। গঠনার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা খাগড়াছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানব বন্ধন করেন। অভিযোগ করায়, খাগড়াছড়ি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ ও কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর কতৃক দুইটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।