ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে চোলাই মদ বানানোর উপকরণ ও বিপুল পরিমাণ চোলাই মদসহ একটি কারখানা আবিস্কার


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৪ মে, ২০২১

সোহেল মিয়া, কেরানীগঞ্জ প্রতিবেদক,ঢাকা::

ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে চোলাই মদ বানানোর উপকরণ ও বিপুল পরিমাণ চোলাই মদসহ একটি কারখানা আবিস্কার
সোহেল মিয়া,কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি

ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে চোলাই মদ বানানোর উপকরণ ও বিপুল পরিমাণ চোলাই মদসহ একটি কারখানা আবিস্কার করেছে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে উপজেলার রোহিতপুর ইউনিয়নের চর সোনাকান্দা গ্রামের নির্জন ধলেশ্বরী নদীর পাড়ে কারখানাটি প্রথমে আবিস্কার করে স্থানীয় জনতা। পড়ে পুলিশকে খবর দিলে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক সিরাজুল ইসলামের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। তবে পুলিশ আসার আগেই এলাকাবাসী প্রায় ২০ ড্রাম চুলাই মদ পানিতে ফেলে দেয়। এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

অভিযানে ৪টি গ্যাস সিলিন্ডার, ৪টি বড় টিনের ড্রাম, ২২টি প্লাস্টিকের (ভাঙা) ড্রামসহ মদ বানানোর কাজে ব্যাবহৃত নানা সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। বিক্ষুব্ধ জনতা তাদের ডেরা বা আস্তানাটি আগুনে পুড়িয়ে দেয়।

আনোয়ার হোসেন নামে স্থানীয় এক যুবক জানায়,এলাকাটি দূর্গম হওয়া এখানে মানুষের আনাগোনা কম। এই সুযোগে দুরবৃত্তরা এখানে মদের কারখানা খুলে বসে আছে। আমাদের ধারণা এলাকাটিকে ইদানীং যে চুরির ঘটনা ঘটেছে এতেও তাদের হাত আছে। আমরা এর সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের আবেদন করেছি।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী মাইনুল ইসলাম পিপিএম জানান, স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে রোহিতপুর ইউনিয়নের চর সোনাকান্দা গ্রামের শনে ঘেরা ধলেশ্বরী নদীর পাড় থেকে পানিতে পোঁতা অবস্থায় কয়েক ড্রাম চোলাই মদ ও মদ বানানোর উপকরণ উদ্ধার করা হয়।
পুলিশি অভিযানের আগেই মদ তৈরির সাথে জড়িতরা পালিয়ে যায়। জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।