ধামইরহাটে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে প্রকাশ্যে বাড়ীর স্থাপনা ভাংচুর


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ২০ মার্চ, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক:: নওগাঁর ধামইরহাটে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে বাড়ীর স্থাপনা ভাংচুরের ঘটনা উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী। ইউপি সদস্য পদের অপব্যবহারের অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। ঘটনাটি উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নে। ভুক্তভোগী ধামইরহাট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
ধামইরহাট থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার আলমপুর ইউনিয়নের ভেড়ম (সোনাদিঘী) গ্রামের মৃত নবিবর রহমানের ছেলে আবুল কালাম জানান, তার নিজস্ব জোতভুক্ত জমিতে ১২ ফিট রাস্তা ছেড়ে তার পাকা বাড়ীর দেয়া তুলছিলেন। ২০ মার্চ দুপুরে ইউপি সদস্য মো. মুসা তার লোকজন নিয়ে আবু কালামের বাড়ীর ছামসেট ভাংচুর করে এবং কাজে নিয়োজিত নির্মান শ্রমিকদেরও মারপিটের অভিযোগ পাওয়া যায়। এতে গৃহকর্তার প্রায় ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়। শনিবার দুপুরে গৃহকর্তা আবু কালাম ১০ জনের বিরুদ্ধে ধামইরহাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের অভিযুক্ত মুসা মেম্বার ঘটনার সাথে সম্পৃক্তের কথা স্বীকার করে বলেন, ‘গ্রামবাসীর নিষেধ থাকা সত্বেও আবু কালাম ছামসেট দিচ্ছিল, তবে ভাংচুরের নির্দেশনায় দেয়াটা ঠিক হয়নি বলেও অনুতপ্ত হন ইউপি সদস্য মুসা।’
থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ধামইরহাট থানার সহকারী উপপরিদর্শক আমিনুর রহমান বলেন, ‘ভাংচুরের সত্যতা রয়েছে, এমন অন্যায় কাজ করা ঠিক হয়নি ইউপি সদস্যের, তবে স্থানীয়ভাবে পুনরায় স্থাপনা নির্মানের পরিবেশ তৈরী করা হয়েছে।
ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান বলেন, ‘সাধারণ জনগণ ভুল করলেও জনপ্রতিনিধিদের ভুল কাজ করা ঠিক না, বাড়ী ভাংচুরের বিষয়ে তিনিও দুঃখ প্রকাশ করেন।
ধামইরহাট থানার ওসি আবদুল মমিন জানান,‘বিষয়টি থানা পুলিশ ও ইউপি চেয়ারম্যান সহ স্থানীয়দের মাধ্যমে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’