প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে এসে পিটুনিতে প্রাণ গেল যুবকের


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৬ মার্চ, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক:: কুমিল্লার তিতাসে অনৈতিক সম্পর্কের জেরে প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে এসে ডাকাত সন্দেহে পিটুনিতে আরিফ হোসেন (২৫) এক যুবক নিহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার (০৪ মার্চ) রাতে উপজেলা নতুন বাটেরা গ্রামের মনির হোসেনের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। নিহত আরিফ দাউদকান্দি উপজেলার সবজিকান্দি গ্রামের বজলুর রহমানেরর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলা নতুন বাটেরা গ্রামের দুবাই প্রবাসী মোক্তার হোসেনের স্ত্রী ও গজারিয়া উপজেলার চরচাষী গ্রামের এনাম হোসেনের মেয়ে ৩ সন্তানের জননী মৌসুমী আক্তার প্রকাশ সুমির সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন আরিফ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সুমির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছেলেন। ওই সময় তিতাসে ডাকাতের উপদ্রপ বৃদ্ধি পাওয়ায় গ্রামে পাহারারত কয়েকজন যুবক তাকে ডাকাত সন্দেহে আটক করে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীরা তাকে দাউদকান্দি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। ঢাকা নেওয়ার পথে কাচঁপুর ব্রিজের কাছে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে তিতাস থানার ওসি সৈয়দ আহসানুল ইসলাম জানান, উপজেলা চরকাঠালিয়া গ্রামের প্রবাসী মোক্তার হোসেনের স্ত্রী মৌসুমীর সঙ্গে নিহত আরিফের র্দীঘদিন ধরে অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। বৃহস্পতিবার আরিফ মৌসুমির সঙ্গে দেখা করতে আসেন। এ সময় ডাকাত প্রতিরোধে পাহারারত কয়েকজন তাকে ডাকাত সন্দেহে আটক করে গনপিটুনি দিয়ে হত্যা করে। আমরা নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। এ ব্যাপারে পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহত আরিফের পরিবারের দাবি, বৃহস্পতিবার রাতে আরিফ তিতাসের নতুন বাটেরা গ্রামে ব্যবসায়িক পাওনা টাকা চাইতে গেলে সেই গ্রামের কয়েকজন যুবক মিলে ডাকাত সন্দেহে পিটিয়ে গুরতর আহত করে। রাতেই তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান।

নিহতের আত্মীয় মাজহারুল ইসলাম দাবি করেন, আরিফকে বিনা কারণে কিছু ব্যক্তি পিটিয়ে মেরে ফেলেছে। তিনি প্রকৃত অপরাধীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে পরিকল্পিত হত্যার সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান। সূএ-সমকাল।