ফরিদপুরের ভাঙ্গায় সড়কে প্রাণ গেল মেয়রের স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনের


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৪ মার্চ, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক::: ফরিদপুরের ভাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় নগরকান্দা পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকারের স্ত্রী-সন্তানসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় মেয়রসহ আরও ১৫ জন আহত হয়েছেন। তবে মেয়রের অবস্থা গুরুতর। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা পাঠানো হচ্ছে। গতকাল বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার কালিয়ার মোড় এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ওসি ওমর ফারুক দুর্ঘটনার সত্যতা যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন। নিহতরা হলেন- মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকারের স্ত্রী সচিন্তা চন্দ্র সরকার (৪৫), ছেলে গোবিন্দ্র চন্দ্র সরকার (২৫) ও কামাল হোসেন (২৭)। পুলিশ জানায়, বুধবার রাত ৯টার সময় চট্টগ্রামগামী জিএস পরিবহনের সঙ্গে মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে ভাঙ্গা হাইওয়ে ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে হতাহতদের উদ্ধার করেন। জানা গেছে, মেয়র নিমাই চন্দ্র সরকার পরিবারের সদস্যসহ আরও লোকজন নিয়ে ঐতিহ্যবাহী ভাঙ্গার মিষ্টির দোকানে মিষ্টি খেতে এসেছিলেন। সেখান থেকে নগরকান্দায় ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন। আহত শাওন নামের এক বাসযাত্রী জানান, আমাদের বাসটি রাস্তার সঠিক পাশ দিয়ে আসছিল। কিন্ত মাইক্রোবাসটি হঠাৎ রাস্তা ক্রস করতে গেলে বাসের মুখোমুখি লেগে ১০০ ফুট দূরে খাদের মধ্যে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলে দুজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও একজন মারা যান। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। আহতদের মধ্যে রাসেল, শাওন, আরিফ, সোহেলসহ অজ্ঞাত আরও চারজন ভাঙ্গা হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। বাকিদের ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ওসি ওমর ফারুক জানান, দুর্ঘটনায় এ পর্যন্ত মেয়রের স্ত্রী ও পুত্রসহ তিন জন মারা গেছেন। মেয়রসহ আহত হয়েছে কমপক্ষে ১৫ জন। নিহতদের লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।