বাউফলে আসামি-ওসি সেলফিতে তোলপাড়!, বাদীর ক্ষোভ


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৮ মার্চ, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক:: পটুয়াখালীর বাউফল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান সাথে স্থানীয় চিহ্নিত কতিপয় অপরাধীর বেশ কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েছে। ছিনতাই, মাদক, মারামারি ও দ্রুত বিচার আইনের মামলার মামলার আসামীদের সাথে তোলা এমন ছবি নিয়ে উপজেলাজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। জানা গেছে, আসামীরা রোববার রাতে নিজেদের ফেসবুক আইডি থেকেই ওসির সঙ্গে ওই সেলফি ও ফটোসেশনের ছবি পোস্ট করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সারা দেশের ন্যায় বাউফল থানায় ৭ মার্চ আনন্দ উৎসবের আয়োজন করা হলে ওই দিন বিকালে থানা চত্বরে আলোচনা সভা ও সন্ধ্যার পর গানবাজনার চলে। ওই আনন্দ উৎসব চলাকালে বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী, ছিনতাইকারী ও দ্রুত বিচার আইনের মামলার (মামলার নম্বর ২৯ তারিখ ২৫/০২/২০২১) ১ নম্বর আসামী ফয়েজ বিশ্বাস, ২ নম্বর আসামী মামুন হাওলাদার, ৩ নম্বর আসামী কবির মৃধা, ৯ নম্বর আসামী হাসান দফাদার ও ১০ নম্বর আসামী আলাউদ্দিনসহ কয়েকজন সেলফি ও ফটোসেশন করেছেন। এবং তা ওই রাতে নিজেদের ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করেন।
ওসির সঙ্গে সেলফি ও ফটোসেশন করা ওইসব আসামীরাসহ ১৮/২০ লোক গত ১৩ ফেব্রুয়ারি রাতে নওমালা ইউনিয়নের বটকাজল গ্রামে মিজান মৃধার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট করে। এ ঘটনায় মিজান মৃধা বাদী হয়ে ১৮ ফেব্রুয়ারি পটুয়াখালী আদালতে দ্রুত বিচার আইনে একটি নালিশি পিটিশন দায়ের করলে আদালত এ ঘটনায় মামলা নেয়ার জন্য বাউফল থানার ওসিকে নির্দেশ দেন। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি থানায় এ মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়।

বাদী মিজানুর রহমান অভিযোগ করেন, দ্রুত বিচার আইনে দায়েরকৃত মামলার কোন আসামী আদালত থেকে জামিন নেয়নি। বরং আসামীরা এলাকায় বীরদর্পে ঘুরে বেড়াচ্ছেন এবং মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছেন। সেই আসামীদের সাথে থানার ওসির সেলফি ও ফটোসেশন করায় তিনি ভয়-ভীতির মধ্যে আছেন। তিনি ওই মামলা সুষ্ঠু তদন্ত নিয়ে আশংকা প্রকাশ করেছেন। ওসির সঙ্গে আসামীদের সেলফি ও ফটোসেশনের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে। সচেতন মহলে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।