বাগেরহাটে পিতার বিরুদ্ধে শিশু কন্যাকে আছড়ে হত্যার অভিযোগ


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ২৩ মার্চ, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক:: বাগেরহাটের মোল্লাহাটে পিতার বিরুদ্ধে আড়াই বছরের শিশু কন্যাকে আছড়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার সন্ধায় উপজেলার উদয়পুর দৈবকান্দী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পালিয়ে গেছে শিশুটির পিতা।
নির্মম এ হত্যার শিকার শিশুটির নাম রাইসা আক্তার। তাঁর পিতা হুমায়ুন সরদার ওরফে মহিউদ্দিন উদয়পুর দৈবকান্দী গ্রামের মৃত আবদুর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় মোল্লাহাট থানায় মামলা হয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, হুমায়ুন সরদার সেনা সদস্য। তাদের দুটি কন্য সন্তান। রাইসা ছাড়াও
স্নিগ্ধা আক্তার নামে তাদের পাঁচ বছর বয়সী একটি মেয়ে আছে।
মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী গোলাম কবির জানান, পারিবারিক বিরোধের জেরে সোমবার সন্ধা সাড়ে ৬ টার দিকে হুমায়ুন সরদার তার আড়াই বছর বয়সী মেয়ে রাইসাকে আছাড় দেন। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুটি মারা গেছে।
শিশুটির পিতা হুমায়ুন সরদারকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে জন্য পাঠানো হয়েছে।
মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ বিল্পব কান্তি বিশ্বাস জানান সন্ধ্যা ৬.৫০ মিনিটের সময় রাইসা নাম করে ১টি বাচ্চাকে ইমাজেন্সি বিভাগে নিয়ে আসে শুনেছি তার পিতা বাচ্চাটি আছাড় দিয়ে এবং আছাড়ের ফলে মাথার হাড় বেঙ্গে গেছে তার বাম কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল এবং বাম চোখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। বাচ্চাটিকে আনার পরে আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখলাম বাচ্চাটি এখানে আসার আগে মৃত্যুবরন করেছে। ময়না তদন্ত হওয়ার পর রিপোর্ট পেলে হলে আমরা আরও নিশ্চিত হতে পারবো যে সে আঘাত জনিত কারণে মারা গেছে কি না।