বরিশাল

বাবুগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে দেহেরগতিতে নৌকার সাথে হাতপাখা প্রতীকের প্রতিদ্বন্দ্বীতার আভাস

অনলাইন ডেস্ক::: হটাৎ করে করোনা মহামারী প্রকট আকার ধারণ করায় নির্বাচন কমিশন ১১ এপ্রিল নির্বাচন স্থগিত করেন। ২ মাসের বেশি সময় স্থগিত থাকার পর গেল ২ জুন নির্বাচন কমিশন নতুন করে আগামী ২১ জুন স্থগিত নির্বাচনের দিনক্ষন ধার্যকরেন। এরপর থেকেই আবার সরগম হয়ে উঠেছে বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার ৪ টি ইউনিয়নের নির্বাচনী মাঠ। কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রধান রাজনৈকি দল বিএনপি স্থানীয় সরকারের চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বচানের অংশগ্রহণ না করার ঘোষনা দিলে এসব ইউনিয়নের বিএনপির কোন প্রার্থী নেই। এর ফলে নৌকা প্রতিকের প্রার্থীদের বিজয়ী হতে তেমন কোন কঠিন পরিস্থিতির মোকাবেলা করতে হবেনা বলে মনে করছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের একাধিক নেতারা। নির্বাচন কমিশন সূত্রের তথ্য মতে, বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ নূরে আলম বেপারী, দেহেরগতি ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ মশিউর রহমান, মাধবপাশা ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ জয়নাল আবেদীন, জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ তারিকুল ইসলাম তারেক। এদিকে জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ তারিকুল ইসলাম তারেক এর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মোঃ কামরুল আহসান হিমু খান। এর মধ্যে উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নের মধ্যে উন্নয়নের জনপদে পরিনত হওয়া একটি ইউনিয়ন দেহেরগতি। যেখানের প্রতিটি গ্রামের রাস্তাঘাট, ব্রীজ কালভার্ট, যোগাযোগ ব্যবস্থার বিস্তর পরিবর্তন করেছেন টানা ২ বারের নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মশিউর রহমান। সেখানে তৃতীয় বারের মত চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন জনপ্রিয় হিসেবে পরিচিত পাওয়া চেয়ারম্যান মোঃ মশিউর রহমান। তার বিপরীতে জাতীয় পার্টি, ওর্য়ার্কাস পার্টি ও ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ এর প্রার্থী রয়েছে। ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী ক্লিন ইমেজের হওয়ায় সর্ব কনিষ্ঠ চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলহাজ¦ মাওলানা মুহাম্মদ নুর উদ্দিন খানের এলাকায় বেশ জনপ্রিয়তা রয়েছে। এছাড়াও বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করায় ইসলামি আন্দোলনের ভোট ব্যাংক ক্রমশই বাড়ছে বলে ধারনা করছেন ভোটাররা। সে হিসেবে বাবুগঞ্জ উপজেলার ইউপি নির্বাচনে দেহেরগতি ইউনিয়নে নৌকার সাথে হাতপাখা প্রতিকের প্রতিদ্বন্দ্বীতার আভাস পাওয়া গেছে। মহাজোটের ভাগীদার ওয়ার্কার্স পার্টি এ ইউনিয়নে বিএনপির ভোট পাবেন না। কারন, জাতীয় রাজনীতিতে আওয়ামী লীগ ও ওয়ার্কার্স পার্টি একই সুত্রে গাথা। দলীয় ভোটার হিসাব করলে জাতীয় পার্টি,ওয়ার্কার্স পার্টির তুলনামূলক একই চিত্র। বিপরীতে আওয়ামী লীগ সরকার দীর্ঘ মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা ও তাদের ভোটার সংখ্যা অন্যন্যাদের তুলনায় অনেক বেশি। দেহেরগতি ইউনিয়ন বিএনপির এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি না। তাই কাউকে সমর্থনও জানাবো না। রাজনৈতিক মাঠে আওয়ামী লীগ ও ওয়ার্কার্স পার্টি একই সুত্রে গাথা।ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ¦ মাওলানা মুহাম্মদ নুর উদ্দিন খান বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে আমাদের দল ছাড়াও আরও অনেক ভোট রয়েছে। আমরা মাঠে ভোটারদের অনেক সাড়া পাচ্ছি। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে হাতপাখার বিজয় অর্জন নিশ্চিত। অপরদিকে কেদারপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মোঃ নূরে আলম বেপারী। তিনিও বর্তমানে একই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। তিনি দাবি করেন তিনি এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত করেছেন। সরকারী সাহায্য ছাড়াও ব্যক্তিগত অর্থে করোনা দূর্যোগে এলাকার গরীব অসহায় কর্মহীণ মানুষকে সাহায্য সহযোগিত করেছেন। করোনা কালীণ সময়ে তার নামে সরকারী চাল আৎসাতের অভিযোগের বিষয়ে তিনি দাবি করেন,তার জনপ্রিয়তায় ঈষান্বিত হয়ে ও সামাজিক ভাবে তাকে হেয়প্রতিপন্ন করতে তার রাজণৈতিক প্রতিপক্ষরাই এমন অভিযোগ তুলেছেন। পরে যেটি আদালতের মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে। অনুসন্ধানের দেখা গেছে,কেদারপুর ইউয়িনরে ওর্য়ার্কাস পার্টির হাতে গোনা কিছু ভোট রয়েছে। সেই ভোটারের সমর্থণ নিয়ে প্রধান রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের প্রার্থীর সাথে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বীতায় টিকে থাকা দুঃষ্কর। তবে, মাধবপাশা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী মোঃ জয়নুল আবেদীনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জাতীয় পার্টি মনোনিত প্রার্থী মোঃ সিদ্দিকুর রহমান তিনি বেশ ঘটা করে ইউনিয়ন জুড়ে প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। পূর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে বাবুগঞ্জ উপজেলায় জাতীয় পার্টির দলীয় সমর্থন ও ভোটার সংখ্যা অনেক বেশি। উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মোঃ মুকিতুর রহমান কিসলুর দাবি জাতীয় পার্টির মাধবপাশা ইউনিয়নের প্রার্থীর সিদ্দিকুর রহমানের ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে।

আরও সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button