মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলের ১৯ কিলোমিটার ইনারবার ড্রেজিং কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী।


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ১৩ মার্চ, ২০২১

বাগেরহাট প্রতিনিধি:::মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলের ১৯ কিলোমিটার ইনারবার ড্রেজিং কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী। শনিবার (১৩ ই মার্চ) দুপুরে মোংলা বন্দরের আয়োজনে জয়মনিরঘোল ফুড সাইলোর পাশে ইনারবারে এ ড্রেজিং প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিতো হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুর খালেক,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাববুন নাহার,বাগেরহাট জেলা প্রশাসক আ.ন.ম.ফয়জুল করিম,নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয়েরর সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ চৌধুরী।
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা’র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন,বাগেরহাট জেলা প্রশাসক আ.ন.ম.ফয়জুল হক,মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য(হারবার ও মেরিন)ক্যাপ্টেন এম আব্দুল ওয়াদুদ তরফদার,সদস্য(প্রকৌশলী ও উন্নয়ন)মোঃ ইমতিয়াজ হোসেন,পরিচালক(প্রশাসন) মোঃ গিয়াস উদ্দিন,ইনারবার ড্রেজিং প্রকল্প পরিচালক শেখ শওকত আলী,প্রধান প্রকৌশলী(সিভিল ও হাইড্রোলিক্স),কর্তৃপক্ষের বিভাগীয় প্রধানগণ,কর্মকর্তা-কর্মচারী,মোংলায় অবস্থিত শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ,বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ।

বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে এ প্রকল্পের মোট প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৯৩ কোটি ৭২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা।প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য মোংলা বন্দর জেটিতে ৯.৫-১০ মিটার ড্রাফটের জাহাজ হ্যান্ডলিং করা। এই প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০২২ সালে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ বলেন, নদীখননের মাধ্যমে সারাদেশে নৌ-বাণিজ্য সৃষ্টি হবে। ফলে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে এর ফলে বেকারত্ব দূর হবে এবং কৃষিনির্ভর কার্যক্রম বৃদ্ধি পাবে। সাশ্রয়ী মূল্যে যাত্রী এবং মালামাল পরিবহণ সহজ হবে।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার অঙ্গিকার শত বছরের পুরনো নদীর গতিপথ ফিরিয়ে আনা উল্লেখ করে করে তিনি বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্য নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশ ও জনগনের জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন;তারই ফলশ্রুতিতে সারাদেশে ১০,০০০ কিলোমিটার নৌপথ খনন করা হবে।ড্রেজিং কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা’র পক্ষ থেকে বিশেষ অতিথিদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।