রাজধানী ছাড়ছেন মানুষ লকডাউনের শঙ্কায়


২৪ ঘন্টা বার্তা   প্রকাশিত হয়েছেঃ   ৪ এপ্রিল, ২০২১

অনলাইন ডেস্ক::সারাদেশে করোনা সংক্রমণের হার লাফিয়ে বাড়ায় গতকাল সোমবার থেকে ১ সপ্তাহের জন্য সারাদেশে লকডাউন করতে যাচ্ছে সরকার। সংবাদ প্রচারের পর গতকাল থেকে রাজধানীর সদরঘাট ও বাস টার্মিনাল গুলোতে লোক সংখ্যার ভিড় বাড়ছে। লকডাউনে আটকা পড়তে পারেন, এই আশঙ্কায় আগেভাগে রাজধানী ছাড়ছেন।সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তার সরকারী বাসভবনে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে জানান, করোনা সংক্রমণ দিন দিন বেড়ে যাওয়ায় আগামী সোমবার থেকে সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা হতে পারে । গতকাল বিকাল ৪ টার দিকে রাজধানীর বিভিন্ন বাস টার্মিনাল , সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে খোজ নিয়ে জানা যায়, আজ ছুটির দিনে সাধারণত মানুষ ঢাকায় ফিরে আসে। কিন্তু গতকাল ঘটেছে ব্যতিক্রম। ঢাকা থেকে বাইরের গন্তব্যে যাত্রীদের ভিড় লেগে আছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ভিড় বাড়ছে।ঘরমুখো মানুষের মধ্যে ছাত্র, ব্যবসায়ী, দৈনিক আয়ের শ্রমিক এসকল নিম্নআয়ের মানুষই বেশি। আবার যারা নানা কাজে ঢাকায় এসেছেন, তারাও ফিরে যাচ্ছেন আগে থেকেই। যাত্রী ভিড়ের কারণে অনেক পরিবহন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না বলে জানা গেছে।রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে ঘরমুখো মানুষকে বাস, সিএনজি, রিকশায় বাস টার্মিনাল ও সদরঘাটের দিকে যেতে দেখা গেছে। কেননা গত লকডাউনে আটকা পড়ে তাকে অনেক বিড়ম্বনা পোহাতে হয়।মহাখালী বাস টার্মিনালে একটি পরিবহনের কাউন্টার কর্মকর্তা জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে কয়েক দিন ধরে বাসের অর্ধেক আসন ফাঁকা রেখে যাত্রী পরিবহন করছেন তারা। ফলে যাত্রীর চাপ। এখন লকডাউন ঘোষণার পর প্রচুর যাত্রী এসছে  টর্মিনালে। চাপ সামলাতে গিয়ে আসন খালি রাখা কঠিন হয়ে পরবে ।এদিকে সদরঘাটি লঞ্চ টার্মিনালেও একই চিত্র দেখো গেছে । ভিড়ের কারণে সেখানে কোনো ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই। অর্ধেক যাত্রী উঠানোর নির্দেশনা হচ্ছে। যাত্রীবাহি লঞ্চের ডেকের যাত্রীরা ঘেঁষাঘেঁষি করে অবস্থান করে আছেন। লঞ্চের ভেতরে মানুষের ভিড়। যাত্রীরা জানান সামনে সময়ের সঙ্গে এই ভিড় আরও বাড়বে বলে । লকডাউন ঘোষণার পর আগামী সোমবার থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করবে কি না এ বিষয়ে জানে না লঞ্চ কর্তৃপক্ষ এবং যাত্রীরা। তাই অনেকে রওনা হয়েছেন।