অর্থনীতি

৫ প্রতিষ্ঠানকে চামড়া রপ্তানির অনুমতি দিলো সরকার

অনলাইন ডেস্ক:::: সরকার প্রথমবারের মতো ৫টি প্রতিষ্ঠানকে ২০ লাখ বর্গফুট করে মোট ১ কোটি বর্গফুট ওয়েট-ব্লু চামড়া রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে। ৫ টি প্রতিষ্ঠান হলো- কালাম ব্রাদার্স ট্যানারি লিমিটেড, মেসার্স কাদের লেদার কমপ্লেক্স, আমিন ট্যানারি লিমিটেড, লেদার ইন্ডাস্ট্রিজ অব বাংলাদেশ লিমিটেড, একেএস ইনভেস্টমেন্ট। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব নাজনীন পারভীন স্বাক্ষরিত আদেশে এই পাঁচটি প্রতিষ্ঠানকে চামড়া রপ্তানির এ অনুমতি দেয়া হয়। গত ১৭ই ও ৩০শে জুন প্রতিষ্ঠানগুলোকে পৃথক আদেশে অনুমতি দেয়া হলেও আজ মন্ত্রণালয় থেকে গণমাধ্যমকে প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের আবেদনের প্রেক্ষিতে ২০ লক্ষ বর্গফুট ওয়েট-ব্লু চামড়া হংকং, চীন, কোরিয়া, জাপান, ভিয়েতনাম, ইতালি, স্পেন, জার্মানিতে ৬টি শর্তে রপ্তানির অনুমতি দেয়া হলো।

শর্তগুলো হলো-
১. রপ্তানি নীতি ২০১৮-২১ অনুসরণ করতে হবে।

২. এই অনুমতি শুধুমাত্র রপ্তানির অনুমতি প্রাপ্ত ওয়েট-ব্লু চামড়ার নির্ধারিত পরিমাণের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। পরবর্তী রপ্তানি সমূহের জন্য পুনরায় আবেদন করতে হবে।

৩. রপ্তানির অনুমতির মেয়াদ ৩০-০৬-২০২২ পর্যন্ত বহাল থাকবে।

৪. জাহাজিকরণ শেষে রপ্তানি সংশ্লিষ্ট সকল প্রকার কাগজপত্রাদি এ অধিশাখায় দাখিল করতে হবে।

৫. যে দেশে রপ্তানির জন্য অনুমোদন প্রদান করা হবে সেব দেশেই রপ্তারি করতে হবে।

৬. সরকার যে কোন সময় ওয়েট-ব্লু চামড়া রপ্তানি নিষিদ্ধ করতে পারবে। ।
শীর্ষনিউজ/এম
Ojana Ori
Ojana sent Yesterday at 3:50 PM
ঈদুল আজহার তারিখ নির্ধারণে রোববার চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক

শীর্ষনিউজ, ঢাকা: পবিত্র ঈদুল আজহার তারিখ নির্ধারণ ও ১৪৪২ হিজরি সনের পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনা এবং এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে রোববার সন্ধ্যায় বৈঠকে বসছে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি।

আজ শনিবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই খবর জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, রোববার বাদ মাগরিব সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব সাহানে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এমপি।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়- বাংলাদেশের আকাশে কোথাও পবিত্র জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা নিম্নোক্ত টেলিফোন ও ফ্যাক্স নম্বরে অথবা সংশ্লিষ্ট জেলার জেলা প্রশাসক অথবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়।

টেলিফোন নম্বর: ৯৫৫৯৪৯৩, ৯৫৫৫৯৪৭, ৯৫৫৬৪০৭ ও ৯৫৫৮৩৩৭।
ফ্যাক্স নম্বর: ৯৫৬৩৩৯৭ ও ৯৫৫৫৯৫১।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button